ব্রেকিং:
পাবনায় কাভার্ডভ্যান-মিনি ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৩

শুক্রবার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১৫ ১৪২৬   ০৪ রজব ১৪৪১

পাবনার খবর
২১

বেড়ায় অসহায় পরিবারকে  হয়রানি মামলায় ফাঁসিয়ে বাড়ি দখলের অভিযোগ

পাবনার খবর

প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০২০  

পাবনার বেড়া পৌর এলাকার সানিলা মহল্লায় এক অসহায় দরিদ্র পরিবারের বাড়ি দখলের পায়তারা করে বার বার হয়রানি মামলা করার অভিযোগ দেলোয়ার নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। সে একই মহল্লার মৃত আমির আলী প্রাং এর ছেলে। হয়রানি মামলা থেকে নিস্তার চায় কেসমতের এতিম ছেলেরা।

জানা যায়, বেড়া পৌর এলাকার সানিলা মহল্লার  মৃত হেকমত আলী তার বাড়ির পাশে মেয়ের জামাই মৃত কেসমত আলীকে আড়াই শাতাংশ জায়গা বসাবাসের জন্য দেন। কেসমত আলী সেখানে দীর্ঘ ২০বছর ধরে পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করে আসছিল। এরই মধ্যে বাড়ির পাশে তার চাচাত শালা দেলোয়ার .৪০ শতাংশ ( হাফ শতাংশের কম) জমি বিক্রির জন্য প্রস্তাব দেন। প্রস্তাবে সারা দিয়ে জমির ক্রয় বাবদ  কেসমত আলী  চাচাত শালা দেলায়ারকে বিভিন্ন সময় টাকা দেয়।

পরে দেলোয়ারকে জমি রেজিষ্টারী করে দেয়ার জন্য বলা হলে সে জমি রেজিষ্টার করে না দিয়ে তালবাহানা করতে থাকে। তাকে চাপ দিলে দেলোয়ার উল্ট কেসমত আলী ও তার চার ছেলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী জমি দখলকারি বলে হয়রানিমুলক দুইটি মিথ্যা মামলা করে।  মামলার ভারে দরিদ্র কেসমত আলী দিশেহারা হয়ে পরে। এই নিয়ে পরে গ্রামবাসি এবং বেড়া পৌরসভায় একাধিক বার সালিশি বৈঠক হয়।

বৈঠকে দেলোয়ার উপযুক্ত প্রমান দেখাতে পারেনি। পৌরসভার বৈঠকে গত ২১/০৩/১৯ রোজ বৃহস্পতিবার পৌরসভার বিচারকগন একটি রায় প্রদান করেন। রায়ে দুই পক্ষই আগের মত সু সম্পর্ক রেখে বসবাস করবেন এবং যত মামলা মোকদ্দমা আছে তা তুলে নেয়ার অঙ্গীকার করেন। কিন্তু এর পরও দেলোয়ার মামলা তুলে না নিয়ে হয়রানি করতে থাকে। এরই পরিপেক্ষিতে দরিদ্র কেসমত আলী মামলার চাপে খরচ বহন করতে না পেরে ও পরিবারের ভরন পোষন করতে হিমশিম খাচ্ছিল।

একপর্যায়ে দেলোযারের  হয়রানি সহ্য করতে না পেরে গত ৪/০২/২০১৯ তারিখে তিনি ষ্টোক করে মারা যান। তারপরও  থামেনি দেলোয়ার। বর্তমান এতিম ৪জন ছেলে  মামলার বোঝা বহে বেড়াতে দিশেহারা হয়ে পরেছে। তারা দেলোযারে এই হয়রানি মুলক মামলা থেকে নিস্তার চায়।

এলাকাবাসির কাছ থেকে জানা যায়, দেলোয়ার কেসমত আলী ও  চার ছেলেকে সন্ত্রসী সাজিয়ে যে মামলাগুলো করেছে তা মিথ্যা। ছেলেরা কোন সন্ত্রাসী বা রাষ্ট্র বিরোধী কার্যক্রমের সাথে জরিত নয়। গ্রামবাসির দাবী দ্রুত হয়রানি মামলা থেকে তারা নিস্তার পেলে পরিবারটা বাচতো। 

স/এমএমআই

পাবনার খবর
এই বিভাগের আরো খবর